Select Page

‘পুরস্কারের জন্য ছবি মানে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে শিল্প সৃষ্টি’

‘পুরস্কারের জন্য ছবি মানে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে শিল্প সৃষ্টি’

বেশ আগেই শেষ হয়েছে ‘খাঁচা’র শুটিং। এখন চলছে সাউন্ড এডিটিং। এরপর সেন্সরে জমা পড়বে। সম্প্রতি প্রথম আলোকে সিনেমাটির নানা তথ্য জানালেন পরিচালক আকরাম খান

তিনি জানান, বিশ্বের বেশ কয়েকটি উৎসবে প্রদর্শনীর পর ‘খাঁচা’ দেখতে পারবেন বাংলাদেশের দর্শকেরা। তবে পুরস্কারের জন্য বানানো সিনেমা নিয়ে তার ভিন্নমত লক্ষণীয়।

ছবির বিষয়বস্তু ও নির্মাণশৈলী পুরস্কার পাওয়ার মতো কি না জানতে চাইলে বলেন, ‘সেটা পুরস্কারদাতারা বলতে পারবেন। আমি পুরস্কার পাওয়ার জন্য ছবি বানাই না। পুরস্কারের জন্য ছবি বানানো মানে, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে শিল্প সৃষ্টির চেষ্টা করা। উদ্দেশ্য নিয়ে শিল্পসৃষ্টি হয় না। যারা সেই চেষ্টা করেন, তাদের ভাবনায় হয়তো থাকে—বিদেশ থেকে পুরস্কার পেলে ছবিটির প্রতি দেশের দর্শকের বাড়তি আগ্রহ তৈরি হবে।’

আকরাম বলেন, ‘অনেক ক্ষেত্রে দেশের নানা পরিস্থিতিকে ছবিতে ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়। পুরস্কার পেতেই হবে? জীবদ্দশায় ঋত্বিক ঘটকের ছবি পুরস্কার পায়নি, আব্বাস কিয়ারোস্তামির ৯ বা ১০ নম্বর ছবি পুরস্কার পেয়েছে। তাতে পরিচালক হিসেবে তাঁদের মাহাত্ম্য কমেনি।’

ছবি ব্যবসা করতে পারবে? এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘সব ছবিকে কেন ব্যবসা করতে হবে? টাকা রোজগার আমার উদ্দেশ্য নয়। এককালীন হলে দেখিয়ে যে ছবি হারিয়ে যাবে, আমি সেই ছবি বানাচ্ছি না। আমার উদ্দেশ্য একটি শৈল্পিক ও গভীর বক্তব্যের ছবি নির্মাণ, যা দর্শকের কল্পনাশক্তিকে উসকে দেবে। তা ছাড়া ছবির লাভ-ক্ষতির হিসাবটা অন্যরকম। আমার বিশ্বাস “খাঁচা” ছবিটির কথা মানুষ মনে রাখবে, বিশেষ সময়গুলোয় নিয়মিত দেখতেও পাবে।’

খ্যাতিমান কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হকের ‘খাঁচা’ গল্প অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে এক্ই নামের সিনেমাটি।

এর আগে দর্শক নন্দিত হয়েছিল আকরাম খানের পরিচালিত ছবি ‘ঘাসফুল’।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

[wordpress_social_login]

Shares