Select Page

মিশাকে দেখিয়ে সালমান বলেন, ‘ডন তোর টিকিট কিন্তু শেষ’

মিশাকে দেখিয়ে সালমান বলেন, ‘ডন তোর টিকিট কিন্তু শেষ’

সালমান শাহর সঙ্গে বেশ কিছু সিনেমায় ভিলেন চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিশা সওদাগর। ওই সময় অমর নায়ক মিশার প্রতিভা বুঝতে পেরেছিলেন বলে দাবি এই খলনায়কের।

সম্প্রতি তানভীর তারেকের ইউটিউব শো-এ এসে সেই সময়ের স্মৃতিচারণ করলেন মিশা। জানান, তাকে দেখিয়ে আরেক উঠতি ভিলেন ডনকে বলেন, ‘তোর টিকিট কিন্তু শেষ!’

ওই অংশটি ভিডিও দেখে অনুলিখন করেছেন রহমান মতি। সেখান থেকেই জেনে নিন সেই ঘটনা—

আশা ভালোবাসা’ ছবির কথা আমি বিশেষভাবে মনে রাখব সারাজীবন। এ ছবি দিয়ে আমার ভিলেন টাইম শুরু হয় প্রফেশনালি। আমাকে শ্যুটিং-এ খুব সিরিয়াস থাকতে হয়েছে। সালমান শাহ তখন সুপার ডুপার স্টার। ডনও তখন ইয়াং ভিলেনদের মধ্যে স্টার। সালমানের সাথে শট দিতে যাব। শটটা ছিল তাকে একটা গালি দিতে হবে। স্টাইল করে গালিটা দিলাম তখন দেখি সবাই তালি দিচ্ছে।

সালমান বিস্মিত হয়ে কিছুক্ষণ তাকালো আমাকে বলল-‘মিশাভাই, এটা কি ডেলিভারি দিলেন অসাধারণ’ তারপর ডনকে বলল, ‘ডন তোর টিকিট কিন্তু শেষ।’ এটা ছিল প্রফেশনালি কোনো ছবির সেটে আমাকে দেয়া প্রথম কোনো কমপ্লিমেন্ট এবং সালমান শাহর কাছ থেকে এটা ছিল অসাধারণ।

ঐ ছবির আরেকটা শট ছিল যেখানে সালমান আমার দিকে তাকাতে তাকাতে এগিয়ে আসবে আর আমি তাকে ঘুষি মারব। কিন্তু সমস্যাটা হয়ে গেল সালমান যখন এগিয়ে আসছিলো ওর এক্সপ্রেশন এত ম্যাচিউর যে আমি কেমন যেন হয়ে গেলাম এবং ভুল করে ঘুষিটা সালমানের কপালে লাগল। সালমানের অ্যাকশনের যে এক্সপ্রেশন ওরকম এক্সপ্রেশন ওর পরে আমি মান্নার কাছে পেয়েছি আর কারো কাছে পাইনি।

সালমান তো অনেক রেড একটা ছেলে সঙ্গে সঙ্গে ওর কপালে ফুলে নীল হতে থাকল। সবাই তো সেটে আমার দিকে তাকাচ্ছে। একজন তো বলেই দিলো, ‘কী করলা তুমি এটা? সালমান শাহর সাথে তুমি ফাইট করতে আসছ তোমাকে বুঝতে হবে।’ সালমান তখন নিজে বলল, ‘আরে না মিশাভাই ঠিকই ছিল আমি বেশি এক্সপ্রেশন দিয়ে ফেলেছি।’

দ্যাট ইজ সালমান শাহ, আর্টিস্টকে সম্মান করত। পরে তো দুদিন শ্যুটিং বন্ধ আমার মন খারাপ। ভাবলাম বাদই দেয় কিনা আমাকে কিন্তু না আমাকে রেখেছিল। ছবি শেষ করার পর সালমান আমাকে একদিন অন্য ছবির সেটে বলেছিল, ‘মিশাভাই, যে অভিনয় করেছেন এ ছবিতে আপনি নেক্সট জেনারেশনে রাজত্ব করবেন ভিলেনে।’ সালমানের দূরদর্শী চিন্তা সত্য হয়েছে এবং আমি আজকের মিশা সওদাগর।


মন্তব্য করুন

Shares