Select Page

মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশের ফরাসি বন্ধু, শুটিং পুরোটাই হলো কলকাতায়

মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশের ফরাসি বন্ধু, শুটিং পুরোটাই হলো কলকাতায়

বেশ কৌতূহল জাগিয়ে শুরু হওয়া ফাখরুল আরেফীন খানের নতুন ছবি ‘জ্যাঁ কুয়ে ১৯৭১’ -এর শুটিং শেষ হলো কলকাতায়।

এ কাহিনী ১৯৭১ সালের ৩ ডিসেম্বরের। প্যারিস অরলি বিমানবন্দরে অবতরণ করল পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইনসের (পিআইএ) একটি বোয়িং-৭২০ বি। ১৭ জন যাত্রী ও ৬ জন ক্রু নিয়ে ‘সিটি অব কুমিল্লা’ নামের বিমানটি লন্ডন থেকে এসেছে; রোম, কায়রো হয়ে যাবে করাচি। প্যারিস থেকে উঠবেন পাঁচজন যাত্রী। ওই পাঁচজনের সঙ্গে বিমানবন্দরের নিরাপত্তাব্যূহ পার হয়ে বোয়িংটিতে উঠে বসলেন জ্যাঁ কুয়ে। বাংলাদেশের স্বাধীনতার পক্ষে যাত্রীসহ বিমানটি ছিনতাই করে হয়ে উঠলেন আন্তর্জাতিক শিরোনাম।

জ্যাঁ কুয়ের সেই উত্তেজনাকর ঘটনা নিয়ে চার বছরের গবেষণা শেষে শুটিংয়ে নামেন ‘ভুবন মাঝি’ ও ‘গণ্ডি’ খ্যাত নির্মাতা।

চলতি বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে পশ্চিমবঙ্গের পৈলান স্টুডিওতে সেট ফেলে শুরু হয় ‘জ্যাঁ কুয়ে ১৯৭১’ ছবির দৃশ্যধারণ। জানা গেছে, দুই দফায় প্রায় এক মাসের শুটিং শেষে শেষ হয় চিত্রায়নের কাজ। এখন এডিটিং ও ডাবিংয়ের কাজে ব্যস্ত নির্মাতা।

নির্মাতা বলেন, ‘এটা আমাদের গড়াই ফিল্মসের প্রথম আন্তর্জাতিক কাজ। মুক্তিযুদ্ধের সময় দেশের বিপদে পড়া মানুষদের সাহায্য করতেই বিমান ছিনতাই করেছিলেন জ্যাঁ কুয়ে। যদিও অফিসারদের চালাকির কারণে তিনি আটকা পড়েছিলেন সেদিন। কিন্তু ঠিকই তার শর্ত মেনে ২০ টন ওষুধ কলকাতায় এসেছিল। কেমন করে, কোন ভাবনা থেকে বিমানটি ছিনতাই করলেন কুয়ে, বিমানের ভেতরে সেদিন কী ঘটেছিল—পুরো বিষয়টি আমরা পর্দায় তুলে ধরতে চেয়েছি। আশা করছি বাংলাদেশের এই পরম বন্ধুকে নিয়ে নির্মিত সিনেমাটি দর্শকের ভালো লাগবে।’

‘জ্যাঁ কুয়ে ১৯৭১’ ছবির নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন পশ্চিমবঙ্গের সৌরভ শুভ্র দাশ। এ ছাড়াও অভিনয় করছেন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্রান্সিসকো রেমন্ড, রাশিয়ার ডেরিয়া গভ্রুসেনকো, নিকোলাই নভোমিনাস্কি, ভারতের সব্যসাচী চক্রবর্তী, ইন্দ্রনীলসহ প্রায় ৩৬ জন শিল্পী। ‘জ্যাঁ কুয়ে ১৯৭১’ সিনেমাটি যৌথভাবে প্রযোজনা করছেন মোহাম্মাদ ফরিদ খান ও ফাখরুল আরেফীন খান।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Shares