Select Page

মুক্তিযুদ্ধে শহীদ হন সেতারা আহমেদের ছেলে

মুক্তিযুদ্ধে শহীদ হন সেতারা আহমেদের ছেলে

সেতারা আহমেদ বেশিরভাগ ছবিতে জটিল ও কুটিল চরিত্রে অভিনয় করেছেন। তার অভিনয় দেখে অনেকেই বলতেন ‘কূটনীবুড়ি.। তার অভিনয় প্রতিভা দিয়ে জানিয়ে দেন, এ রকম সব চরিত্রে তিনি অদ্বিতীয়।  এ ছাড়া বাংলাদেশ টেলিভিশনের ধারাবাহিক নাটক ‘সকাল সন্ধ্যা’য় পঁচার মা চরিত্রে অভিনয় করে দর্শক-শ্রোতাদের কাছে আজও স্মরণীয় হয়ে আছেন তিনি।

এর চেয়ে বড় বিষয় সেতারা আহমেদ একজন শহীদ জননী। ২০০১ সালের ৩০ মার্চ ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন এ অভিনেত্রী। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর।

সেতারা আহমেদ ১৯৩১ সালের ১২ সেপ্টেম্বর, ঢাকায় জন্মগ্রহন করেন। মঞ্চনাটক দিয়ে অভিনয় শুরু করেন তিনি। ঢাকা রেডিওতে নাট্যশিল্পী হিসেবে যোগ দেন চল্লিশদশকের শেষের দিকে।

তার ছেলে ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মানিক আহমেদ, যিনি আামাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ হয়েছেন।

সেতারা আহমেদ অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রসমূহের মধ্যে রয়েছে-  আসিয়া, ধূপছাঁও, পালাবদল, সখিনা, আলিঙ্গন, নীল আকাশের নীচে, রং বদলায়, অশান্ত ঢেউ, সারেং বউ, অনির্বাণ, সুন্দরী, আরাধনা, অশিক্ষিত, সূর্য দীঘল বাড়ী, তরুলতা, আপন ভাই, বিনি সুতার মালা, ভালো মানুষ, কলমিলতা, লালকাজল, ভালো মানুষ, উজান ভাটি, ভাগ্যচক্র, সাত রাজার ধন, চন্দ্রনাথ, স্বামীর ঘর, সীমার, বড় মা, মেহমান, নতুন পৃথিবী, গৃহবিবাদ, সুদ আসল, আওলাদ, চাঁপা ডাঙ্গার বউ, রক্তের অধিকার, দেবর ভাবী, চোরের বউ, প্রভৃতি।

তথ্য ও ছবি সূত্র: আজাদ আবুল কাশেম ও ফিরোজ এম হাসান


মন্তব্য করুন

Shares