Select Page

শাকিব-অপুর বিয়ে : সব প্রশ্নের উত্তর মিলেনি

শাকিব-অপুর বিয়ে : সব প্রশ্নের উত্তর মিলেনি

গেল সপ্তাহে বাংলাদেশের বিনোদন জগতে সম্ভবত এ বছরের সবচেয়ে আলোচিত ঘটনাটি মঞ্চস্থ হল। বাচ্চা কোলে নিয়ে অপু বিশ্বাস টিভি চ্যানেল লাইভে হাজির হয়ে জানালেন – এই সন্তানটির পিতা শাকিব খান এবং অপু বিশ্বাস তার মা। তারা বিয়ে করেছেন প্রায় সাত-আট বছর আগে। মুহুর্তের মধ্যে সারাদেশের এক নম্বর ইস্যুতে পরিণত হয় ঘটনাটি। শাকিব খান বিয়ে-সন্তানের ঘটনা অস্বীকার করেননি, তবে অপু বিশ্বাস তাকে অসম্মান করেছে এই অভিযোগে তিনি জানিয়েছিলেন, পুত্রের দায়িত্ব গ্রহণ করলেও অপুর দায়িত্ব গ্রহণ করবেন না। অবশ্য একদিন পার হওয়ার আগেই তিনি এ সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন, আরেকটি টিভি চ্যানেলের লাইভে উপস্থিত হয়ে ভুল স্বীকার করেন এবং সারাদেশের জনগণকে স্বস্তি এনে দেন। তবে, ওই অনুষ্ঠানেও থামেনি পাল্টাপাল্টি অভিযোগ।অপু বিশ্বাস শাকিব খানের বিয়ে করা বউ অথবা ভবিষ্যতে বউ হবেন – এমন ধারণা করেনি এমন মানুষ বাংলাদেশে খুঁজে পাওয়া দুষ্কর হবে। ফলে, বলা যায়, সাম্প্রতিক ঘটনা মানুষের আকাঙ্খাকেই বাস্তব রূপ দিয়েছে। দর্শকের এই আকাঙ্খার পরিসমাপ্তি এর আগেও বহুবার হয়েছে। সম্ভবত মডেল নোবেল ও মৌ – দর্শকের এই আকাঙ্খার বাহিরে গিয়ে ভিন্ন মানুষকে বিয়ে করেছিল।

শাকিব খানঅপু বিশ্বাসের এই অন্তরঙ্গ সম্পর্কের কথা কি বিনোদন জগতের মানুষরা জানতেন না? অবশ্যই জানতেন এবং বিভিন্ন সময়ে নানারকম সংবাদ প্রকাশের মাধ্যমে তারা এই বিষয়ের ইঙ্গিতও দিয়েছেন। কিন্তু যেহেতু অপু বিশ্বাস, শাকিব খান কিংবা তাদের বিয়ের সময় উপস্থিত থাকা প্রযোজক মামুন কখনো এ বিষয়ে গণমাধ্যমের কাছে মুখ খোলেননি, তাই তারা কেবল ইঙ্গিতই দিয়ে গেছেন, কখনো স্পষ্ট করে কিছু বলেননি।

বাংলা মুভি ডেটাবেজ (বিএমডিবি)-র পক্ষ থেকে একটি পোল আয়োজন করা হয়েছিল। বিএমডিবি-র পাঠকদের কাছে প্রশ্ন রাখা হয়েছিল ‘শাকিব খানের কি অপু বিশ্বাসকে স্ত্রী এবং আব্রাহাম খান জয়কে সন্তানের স্বীকৃতি দিয়ে দায়িত্ব নেয়া উচিত?’ ৯২ শতাংশের বেশি পাঠক উত্তর দিয়েছেন ‘হ্যাঁ’। এই উত্তর শাকিব খান এবং অপু বিশ্বাসকে দম্পতিরূপে দেখার যে আকাঙ্খা তার স্বীকৃতি দেয়।

যে সকল পাঠক উত্তর দিয়েছেন তাদেরকে কিছু সম্পুরক প্রশ্ন করা গেলে ভালো হত। যেমন, অপু বিশ্বাস যদি পুত্রসন্তানের মা হওয়ার আগেই দাবী করতেন, তাহলে কি দর্শক তাদের মেনে নিতেন? কিংবা, এখন যদি জানা যায়, শাকিব খানশবনম বুবলির মধ্যে কাজের বাহিরেও ব্যক্তিগত সম্পর্ক রয়েছে তবে তারা কাকে মেনে নিবেন – অপু বিশ্বাস নাকি শবনম বুবলি?

শেষের প্রশ্নটি গুরুত্বপূর্ণ – কারণ টিভি চ্যানেলে উপস্থিত হওয়ার অল্প কদিন পূর্বেই অপু বিশ্বাস পত্রিকার পাতার শিরোনাম হয়েছিলেন – শবনম বুবলিকে ফোন করে গালিগালাজের অভিযোগে। বুবলি তার ফেসবুকে একটি ছবি প্রকাশ করেছিলেন যেখানে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সাথে শাকিব খানও ছিলেন এবং ছবির ক্যাপশন ছিল – ‘ফ্যামিলি টাইম’। অপু বিশ্বাসের প্রশ্ন ছিল – এই ছবির ক্যাপশন কিভাবে ‘ফ্যামিলি টাইম’ হতে পারে, শাকিব খান কি তার ফ্যামিলি? প্রশ্নটির উত্তর পাওয়া যায়নি। মার্চ মাসের আঠারো তারিখে পোস্টকৃত ছবিটি এখনো শবনম বুবলির দেয়ালে শোভা পাচ্ছে। তবে এটা এখন স্পষ্ট যে, শাকিবের পরিবার হিসেবে অপুর স্বীকৃতি না পাওয়ার ক্ষোভকে সেসময় উসকে দেয় ছবিটি।

Shabnam Bubli Shakib Khan Family pic Apu Biswas BMDb

টিভি চ্যানেলে উপস্থিত হয়ে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শাকিব খান স্ত্রী এবং সন্তানের দায়িত্ব নেয়ার পেছনে যে কারণগুলো উপস্থাপন করেছেন তার মধ্যে ক্যারিয়ার এবং বাংলাদেশি চলচ্চিত্রের প্রতি তার দায়িত্ববোধ উল্লেখযোগ্য। বিজ্ঞাপন বিরতিসহ ১ ঘণ্টার সাক্ষাৎকার চলাকালীন সময়ে নিজেকে ১৪বার ‘সুপারস্টার’ দাবী করার কারণে তিনি সমালোচিতও হয়েছেন। এছাড়া সমঝোতার প্রশ্ন আসলেও ওই অনুষ্ঠানে অপুর উপর সব দোষ চাপান শাকিব। আরো জানান, জুটি হিসেবে তাদের আর দেখা যাবে না। ক্যারিয়ারের প্রশ্নে বিয়ের খবর গোপন রাখার যুক্তি গ্রহণযোগ্য হতে পারে কিন্তু স্ত্রী-সন্তানের দায়িত্ব গ্রহণ করার জন্য যদি বাংলাদেশি চলচ্চিত্র শিল্প একটি কারণ হয় তাহলে এই স্বীকৃতিতে প্রশ্ন থেকেই যাবে।

এই প্রশ্ন করার মত একটি ঘটনা ইতোমধ্যে ঘটে গিয়েছে। বৃহস্পতিবার শাকিব খান হঠাৎ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে উপস্থিত হয়েছিলেন। অপু বিশ্বাসও সন্তানকোলে ছুটে গিয়েছেন সেখানে, ৫-১০ মিনিট উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু বিভিন্ন পত্রিকার রিপোর্ট থেকে জানা যায় – শাকিব-অপুর মধ্যে খুব সামান্য কথাবার্তা হয়েছে সেখানে, বাংলানিউজের রিপোর্ট বলছে কথা বার্তা হয় নি। দ্য রিপোর্ট জানাচ্ছে টিভিতে অপু বিশ্বাসকে মেনে নেওয়ার কথা জানালেও গতকাল পর্যন্ত অপুর সাথে স্বাভাবিকভাবে কথা বলেননি শাকিব খান।

সুতরাং বলা যাচ্ছে – শাকিব খান অপু বিশ্বাস ইস্যুতে সব প্রশ্নের সমাধান এখনো মিলেনি। এ বিষয়ে আরও ঘটনা মঞ্চস্থ হওয়ার বাকি। ঘটনা যাই ঘটুক- অপু বিশ্বাস তার ‘সুপারস্টার’ স্বামীর কাছ থেকে স্ত্রীর মর্যাদা পাবেন এবং সিনেমার মতই স্বামী-সন্তানসহ সুখে শান্তিতে জীবন যাপন করবেন- দর্শকদের পক্ষ থেকে আমাদের প্রত্যাশা এটুকুই।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

Shares