Select Page

সহযাত্রী তরুণীর কান্না শুনে ‘নীল মুকুট’ বানালেন কামার আহমাদ সাইমন

সহযাত্রী তরুণীর কান্না শুনে ‘নীল মুকুট’ বানালেন কামার আহমাদ সাইমন

২০১৪ সালে ইস্তান্বুল হয়ে ছিল কামার আহমাদ সাইমনের কান চলচ্চিত্র উৎসবের ফ্লাইট। সে সময় একটা মেয়ে কান্না শুনেছিলেন। প্লেন ছাড়ার আগে মেয়েটি ফোনে কথা বলছিল আর ফুঁপিয়ে ফুঁপিয়ে কাঁদছিল। সেই লম্বা যাত্রায় প্লেনে বসেই খসড়া স্ক্রিপ্ট লিখে ফেলেন। তারপর একদম আওয়াজ ছাড়াই নীরবে সম্পন্ন করেন ছবিটি।

সম্প্রতি এই বর্ণনা দিয়ে কামার প্রথম আলোকে বলছিলেন, “বলতে পারেন, একটা অপরিকল্পিত সন্তানের মতো। আমি ভাবছিলাম শিকলবাহা আর অন্যদিন… আমার যমজ ছবি হবে। এখন মনে হচ্ছে এই অপরিকল্পিত সন্তানই ভূমিষ্ঠ হবে আগে।”

কামারের সেই ছবির নাম ‘নীল মুকুট’।

সঙ্গে যোগ করেন, ছবির টেকনিক্যাল কিছু কাজ বাকি আছে। সেগুলো শেষ করেই শিগগিরই সেন্সরে জমা দেবেন।

কামার আহমাদ সাইমন মূলত পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রামাণ্যচিত্র ‘শুনতে কি পাও!’ দিয়ে নাম কামিয়েছেন। জিতেছেন অনেক পুরস্কার ও তহবিল। এই ওয়াটার ট্রিলজি’র দ্বিতীয় কিস্তি আকারে নির্মাণ করছেন ‘অন্যদিন’। একাধিক তহবিল বিজয়ী ছবিটি শিগগিরই সম্পাদনার জন্য যাচ্ছে হল্যান্ডের আমস্টারডামের নামি একটি উৎসবে। এছাড়া বাংলাদেশ সরকার ও বিদেশি অনুদান পাওয়া পূর্ণদৈর্ঘ্য কাহিনীচিত্র ‘শিকলবাহা’ রয়েছে নির্মাণ প্রস্তুতিতে।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

[wordpress_social_login]

Shares