Select Page

সেন্সর বোর্ডের সবুজ সংকেত পেল ‘বিউটি সার্কাস’

সেন্সর বোর্ডের সবুজ সংকেত পেল ‘বিউটি সার্কাস’

মাহমুদ দিদারের স্বপ্নের প্রজেক্ট ‘বিউটি সার্কাস’। কয়েক বছর ধরে নানা চড়াই-উতরাই পেরোনোর পর এখন মুক্তির দ্বারপ্রান্তে সিনেমাটি। সেন্সর বোর্ড থেকেও পেয়ে গেছে সবুজ সংকেত।

ছোটপর্দা ও ওয়েবে জাদু ছড়ানো দিদার জানালেন, বুধবার (১৮ মে) জয়া আহসান অভিনীত ‘বিউটি সার্কাস’-এর সেন্সর শো অনুষ্ঠিত হয়। এরপরই বোর্ডের সদস্যরা ইতিবাচক বার্তা দিয়েছেন। অর্থাৎ, ছাড়পত্র দিতে তাদের কোনো আপত্তি নেই। দিদারের ভাষায়, ‘সিনেমা ওকে’।

‘বিউটি সার্কাস’ আনকাট সেন্সরের পাশাপাশি বোর্ড সদস্যদের ভূয়সী প্রশংসা পেয়েছে বলেও উল্লেখ করেন মাহমুদ দিদার।

শিগগিরই সনদপত্র হাতে পাওয়ার আশা করছেন তিনি। এরপরই জানাবেন মুক্তির দিনক্ষণ। তার আগে ধাপে ধাপে চলবে প্রচার।

চারপাশের ঘটে যাওয়া ঘটনার মধ্যে ফ্যান্টাসি ও থ্রিলের আবহ তৈয়ারিতে দিদারের জুড়ি নেই। অভিষেক সিনেমা ‘বিউটি সার্কাস‘-এর পোস্টার ও টিজার সেই ভাব বজায় রেখেছে।

বছর দু-এক আগে প্রকাশিত হয় টিজার। এ প্রসঙ্গে তখন বিএমডিবির প্রতিবেদনে বলা হয়, সার্কাস দলের মালকিন জয়া আহসানে কাঁধ নেমে আসা ওড়না সরাতেই উড়ে যাচ্ছে এক ঝাঁক সাদা কবুতর। এ দৃশ্য হয়তো খুবই বাস্তবসম্মত। কিন্তু দিদারের উপস্থাপনা বাস্তবের অধিক। সেই বিবেচনায় হয়তো প্রতীকিভাবে নারীর ক্ষমতায়ন তুলে ধরতে দৃশ্যটি টেনে এনেছেন পোস্টারে। ঝলমলে পোস্টারটি সোশ্যাল মিডিয়ার অনুসরণকারীরা গ্রহণ করেছেন সাদরে।

সরকারি অনুদানে নির্মিত ‘বিউটি সার্কাস’-এর শুটিং হয়েছে দেশের প্রত্যন্ত সব অঞ্চলে। বেশ ঝুঁকি নিয়েই হয়েছে দৃশ্যায়ন। ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন তৌকীর আহমেদ, এবিএম সুমন, শতাব্দী ওয়াদুদ, হুমায়ূন সাধুসহ অনেকে।


আমাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Shares