Select Page

স্টার সিনেপ্লেক্সে বাংলা সিনেমা প্রদর্শনে রেকর্ড

স্টার সিনেপ্লেক্সে বাংলা সিনেমা প্রদর্শনে রেকর্ড

দেশের প্রথম মাল্টিপ্লেক্স স্টার সিনেপ্লেক্সের দেড় যুগের ইতিহাসে অল্পকটি বাংলা সিনেমা সাফল্য পেয়েছে। নইলে বছরের পর বছর হলিউডের সিনেমায় এখানকার ভরসা। এর উপর ভরসা করেই একাধিক আউটলেট ছড়িয়েছে রাজধানীজুড়ে। যাচ্ছে দেশের অন্যান্য শহরে।

সাধারণত সিনেপ্লেক্সের বেশির স্লট দখলে থাকে হলিউড সিনেমার। এবার অনেকটাই ব্যতিক্রম। মাল্টিপ্লেক্সটির ৫ আউটলেটের তিন-চতুর্থাংশ দখলে নিয়েছে ঢালিউড সিনেমা।

ঠিকই ধরেছে, ‘হাওয়া’ জ্বরে ভুগছে স্টার সিনেপ্লেক্সও। তবে তিন সপ্তাহে এসেও বেশ সংখ্যক শো পেয়েছে হালের আরেক চমক ‘পরাণ’।

জানা গেছে, স্টার সিনেপ্লেক্সে রেকর্ড ২৬টি শো পেয়েছে ‘হাওয়া’। এ ছাড়া মিলিটারি মিউজিয়ামে ৩১ জুলাই থেকে বাড়তি তিনটি শো চলবে। এর আগে কোনো বাংলা চলচ্চিত্র এতোগুলো শো নিয়ে স্টার সিনেপ্লেক্সে রিলিজ পায়নি। অবশ্য আগের তুলনায় এখন হলও বেড়েছে।

এ ছাড়া ‘পরাণ’ তৃতীয় সপ্তাহে পেয়েছে দৈনিক ১৬টি শো। এটিও একটি রেকর্ড। এ ছাড়া ‘দিন দ্য ডে’ তৃতীয় সপ্তাহে পেয়েছে দৈনিক ৪টি শো।

অন্যদিকে হলিউডের দুটি সিনেমা পেয়েছে মোট ১১টি শো। অর্থাৎ, ৫৯টি শোর ৪৭টিই বাংলা চলচ্চিত্রের দখলে।

গত কয়েক সপ্তাহে স্টার সিনেপ্লেক্সে লাগাতার হাউসফুল শো উপহার দিয়েছে ‘পরাণ’। এখন অগ্রিম টিকিট বিক্রির দিক থেকে খেল দেখাচ্ছে ‘হাওয়া’।

বুধবার দুপুরে মাল্টিপ্লেক্সটির জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘সিনেমাটির প্রথম তিন দিনের সব টিকিট বিক্রি প্রায় শেষ। এখন ‘পরাণ’-এর ১৮টি শো চলছে। প্রথম থেকেই ছবিটি হাউসফুল যাচ্ছে। এখন আমাদের এখানে হলিউডের সিনেমা বাংলা সিনেমার কাছে পাত্তা পাচ্ছে না। মনে হচ্ছে বাংলা সিনেমার দর্শক জোয়ার শুরু হয়েছে।’


আমাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

Shares