Select Page

হাইকোর্ট দেখিয়ে পরিচালক বললেন, ‘আমি ওকে ছাড়ব না’

হাইকোর্ট দেখিয়ে পরিচালক বললেন, ‘আমি ওকে ছাড়ব না’

দীঘির বিরুদ্ধে মানহানি মামলার হুমকি দিয়েছেন নির্মাতা দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। এক ভিডিও সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আজকে কালকের মধ্যে হাইকোর্ট থেকে ওর কাছে উকিল নোটিশ চলে যাবে। আমি ওকে ছাড়ব না।’

সম্প্রতি ‘তুমি আছো তুমি নেই’ ছবির ট্রেলার প্রকাশ হলে সেটি ব্যাপকভাবে সমালোচনার শিকার হয়। এতে বিব্রত হন দীঘি। তিনি সাক্ষাৎকারে গণমাধ্যমে দাবি করেন, ‘ছবিটি বেশ মানহীন। সিনেমাটি চলবে না।’

সমালোচনার পাশাপাশি বলেন, ‘কাজটি করা আমার ভুল হয়েছে। আর ভুল থেকেই মানুষ শিক্ষা নেয়, ঘুরে দাঁড়ায়। আমি প্রমিজ করছি, এই ভুল আর করব না। কোনো দিনই করব না। যদি কখনো করেই ফেলি, সেদিন সিনেমা ছেড়ে দেব।’

এরপরই ক্ষেপে যান দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আজকালের মধ্যে হাইকোর্ট থেকে ওর (দীঘি) কাছে উকিল নোটিশ চলে যাবে। আমি ওকে ছাড়ব না। যেভাবেই হউক আমি ওকে ছাড়বো না।’

আরও বলেন, “দীঘি যখন বলেছে, ‘সিনেমাটি চলবে না’ তখন পরিচালক হিসেবে আমারও মানহানি হয়েছে। আমি মানহানি মামলা করব দীঘি ও তার মামার নামে। শুটিং, ডাবিংয়ের সময় দীঘি এ সিনেমার প্রশংসা করেছে, এখন কেন সে সমালোচনা করছে। ডেফিনেটলি দেয়ার ইজ সামথিং রং।”

‘আমি দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। বাংলাদেশে আরেকটি নেই। উপমহাদেশে আমার মতো একজন চলচ্চিত্রকার নেই। উপমহাদেশে সবচেয়ে বেশি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছি আমি। আমি দুই কোটি টাকা নিয়ে সিনেমা বানিয়েছি, ২০ লাখ দিয়েও বানিয়েছি। চলচ্চিত্র মেধা দিয়ে তৈরি হয়, টাকা দিয়ে না।’

এ দিকে ছবির প্রযোজক ও অন্য নায়িকা সিমি বলেন, ‘যখন যে মানুষগুলো নিজের প্রসঙ্গে ব্যাড কমেন্ট নিজেই করে তখন বুঝতে হবে সেখানে গণ্ডগোল আছে। আমি দীঘিকে নিয়ে অশ্লীল বা খারাপ ছবি বানাইনি বা বানাতে চাইনি। গ্রামের সুন্দর মেয়ে হিসেবে উপস্থাপন করেছি। তাই অনুরোধ করবো, ১২ মার্চ ছবিটি মুক্তির পর আপনারা দেখুন ও গণ্ডগোলটি খুঁজে বের করুন।’

এ ছবিতে দীঘির বিপরীতে আছেন আসিফ ইমরোজ। সাইমন সাদিক ও বাপ্পী চৌধুরীরও অভিনয়ের কথা ছিল শুরুতে। কিন্তু দুই নায়ক সরে গেলে দুই দফা ক্ষেপে যান ঝন্টু।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Shares