Select Page

‘হাওয়া’র নায়ক শরীফুল রাজ

‘হাওয়া’র নায়ক শরীফুল রাজ

অনেক দিন প্রস্তুতির পর সম্প্রতি নিজের প্রথম চলচ্চিত্র ‘হাওয়া’ নির্মাণের ঘোষণা দিলেন পরিচালক মেজবাউর রহমান সুমন। সব কিছু ঠিক থাকলে অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহেই শুরু হবে শুটিং। এতদিন ছবির নায়ক হিসেবে চঞ্চল চৌধুরীর নাম শোনা গেলেও ফেসবুক পেজে প্রকাশিত এক ছবিতে ‘হাওয়া’ টিমের সঙ্গে দেখা গেল শরীফুল রাজকে।

তবে এখনো সিনেমাটির চূড়ান্ত কাস্টিং সম্পর্কে কিছুই জানানো হয়নি। সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, খানিকটা গোপনীয়তার কাছে এগোতে চাচ্ছেন নির্মাতা।

মেজবাউর রহমান সুমন সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমকে ছবিটি সম্পর্কে বলেন, “হাওয়া হচ্ছে এ কালের রূপকথার গল্প। যার প্রধান উপাদান সমুদ্র, ঢেউ আর একটি ট্রলার। আবহমান কাল ধরে চলে আসা যে রূপকথা আমরা শুনে এসেছি সেই রূপকথা হাওয়া নয়, তবে এই এই সময়ে যে অস্থিরতা তা থেকে বেরিয়ে এসে এক ধরনের ধ্যানমগ্ন নির্মল যাত্রার নাম হাওয়া।”

তিনি আরও বলেন, “সম্পর্ক, প্রতিশোধ এবং মৃত্যুকে উপজীব্য করে এই গল্প নির্মাণ করা হয়েছে। এটি মাটির গল্প নয় বরং পানির গল্প। সমুদ্র পাড়ের মানুষ প্রধান উপজীব্য হলেও সমুদ্র পাড়ের গল্প নয় বরং সমুদ্রের গল্প। মৌলিক গল্পটিই সিনেমার মাধ্যমে জানাতে চাই।”

ছবিটির চিত্রগ্রহণে থাকবেন কামরুল হাসান খসরু। ‘হাওয়া’ প্রযোজনা করছে সান মিউজিক এন্ড মোশন পিকচার্স লিমিটেড।

মেজবাউর রহমান সুমন ২০০৬ সালে প্রথম নাটক ‘দখিনের জানালাটা খোলা, আলো আসে-আলো ফিরে যায়’ দিয়ে অর্জন করেছিলেন মেরিল প্রথম আলো সমালোচক পুরষ্কার। এছাড়াও তার নির্মিত ‘তারপরও আঙুরলতা নন্দকে ভালোবাসে’, ‘পারুলের দিন’, ‘জ্যোৎস্না নদী ও রফিকের কিছু কল্পদৃশ্য’, ‘সুপারম্যান’, ‘কফি হাউজ’ দর্শকদের কাছে প্রশংসিত হয়েছে। তিনি বিজ্ঞাপন নির্মাণেও দেখিয়েছেন মুনশিয়ানা।

এদিকে সম্প্রতি রায়হান রাফীর পরিচালনায় ‘পরান’-এর দৃশ্যায়ন শেষ করলেন শরীফুল রাজ। মুক্তির অপেক্ষায় আছে স্টার সিনেপ্লেক্স প্রযোজিত ‘ন ডরাই’।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?

[wordpress_social_login]

Shares