Select Page

‌‘আজান’ নিয়ে সোনুর মন্তব্যে প্রিন্স ও পিন্টুর জবাব

‌‘আজান’ নিয়ে সোনুর মন্তব্যে প্রিন্স ও পিন্টুর জবাব

‘আজান’ নিয়ে মন্তব্য করে বির্তকের মুখে পড়েছেন ভারতীয় গায়ক সোনু নিগম। ১৭ এপ্রিল এ বিষয়ে তিনি পরপর কয়েকটি টুইট করেন। একটিতে জানান, প্রতিদিন ভোরে আজানের কর্কশ শব্দের কারণে ঘুম ভেঙে যায়। এ জন্য তিনি বিরক্ত হন। এমন মন্তব্যে সোনুর বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন ভক্ত ও বলিউডের অনেক সেলিব্রিটি। এ নিয়ে মুখ খুলেছেন বাংলাদেশের সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক প্রিন্স মাহমুদ এবং গায়ক ও সঙ্গীত পরিচালক পিন্টু ঘোষ

ফেসবুক পোস্টে প্রিন্স মাহমুদ লেখেন, ‘বাচ্চারা তোমরা ইতিহাস জানো না। ১৪ বছর আগেই সনু নিলামের (নিগমের) ক্যারিয়ার সিলগালা করে দিয়েছিল মুসলমান রাহাত ফতেহ আলী খান, আতিফ আসলাম, তারপর আমাদের জেমস। সে বুঝে গিয়েছিল তার একঘেয়ে ছিঁচকাঁদুনে গলা আর কেউ শুনবে না। বুড়ো বয়সে পড়তি ক্যারিয়ারের ফ্রাস্ট্রেসনে, ভরপুর নেশাগ্রস্থ অবস্থায় শেষ রাতে ইচ্ছেমত লিখতে বসে যাওয়া ছাড়া তার আর কিবা করার আছে?’

তিনি আরো লেখেন, ‘আজানের সুরকে অবমাননা করে টুইট, আলোচনায় আসার উপলক্ষ মাত্র। আর মাঝে মধ্যে উপলক্ষ বদলালেও তার ভেতরের সাম্প্রদায়িকতার তোরণ সরে না। এরা কি আসলেই শিল্পী নাকি স্ট্যান্টম্যান! সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প এরাই ছড়ায়। আমাদের বাড়ি শহরের সবচেয়ে বড় গির্জার পাশে। শুধু আজানের সুর নয় সন্ধ্যে-সকাল চার্চবেল আর আশেপাশের হিন্দু বাড়ি থেকে আসা উলুধ্বনি আমাদের কাছে শ্রেষ্ঠ সুর বলেই মনে হয়।’

এদিকে চিরকুট ব্যান্ডের প্রাক্তন সদস্য পিন্টু ফেসবুকে লেখেন, “সব গানে কান্নাকাটি করা ‘সোনু নিগম’ এর গান আমার (ব্যক্তিগত) কোনোদিনও ভাল লাগে নাই, কই কোনোদিন বলি নাই! সম্মান করতাম, কিন্তু আজ তাও হারালেন, গো টু হেল।

‘আজান পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ সুর।’ জীবনে বহুবার এই মিষ্টি সুরে আত্মা কেঁপে উঠেছে। আজানের ধ্বনি শুনলে বাকি সব আওয়াজ কেওয়াজ বন্ধ করে দিই সম্মান করি, ভালোবাসি। আমার কাছে যারা ভোকালের ক্লাস নিতে আসে তাদের প্রথম হোমওয়ার্ক (খালি গলায় আজান আর আমার জাতীয় সঙ্গীত) তারপর অন্য আলাপ। জানিনা কে কীভাবে নিবেন, আমি নিজেও আজান গলায় তোলার চেষ্টা করি, কারণ আমি বিশ্বাস করি পৃথিবীর তাবত সুরের মধ্যে বিদ্যমান তার নাম ‘আজান।”


১ Comment

  1. বাংলাদেশের সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক প্রিন্স মাহমুদ এবং গায়ক ও সঙ্গীত পরিচালক পিন্টু ঘোষ – এরা কারা ? কোন বাল ছাল বা হরিদাস পাল ? জীবনেও এদের নাম শুনিনি। অনেকেই শোনেনি। কিন্তু সনু নিগমের নাম সবাই ঠিকই শুনেছে। এদের মতো পিপীলিকা সনু নিগমের মতো সিংহকে নিয়ে মন্তব্য করে – এদের লজ্জা করে না ? পায়ের চপ্পলটা খুলে এইসব চোট্টাদের পেটানো দরকার ! ড়ামসাগোল কোথাকার !

Leave a reply

সাপ্তাহিক জরিপ

ঈদে কতগুলো ছবি মুক্তি দেয়া উচিত?
সর্বোচ্চ পাঁচটি
পাঁচটির বেশি
Poll Maker

অনুসরন করুন

Pin It on Pinterest

Shares
Share This