Select Page

নায়িকার গান : শাবনূর

নায়িকার গান : শাবনূর

আমাদের চলচ্চিত্রে নায়িকাকেন্দ্রিক গান আছে অনেক। শাবনূরকে নিয়ে বেশকিছু গান হয়েছে। এসব গানে শাবনূরের রূপসৌন্দর্যের বর্ণনার পাশাপাশি বাঙালি নারীর চিরন্তন বৈশিষ্ট্যও ফুটে উঠেছে। সেই গানগুলো নিয়েই এ আয়োজন—

তুমি খুব সাধারণ একটি মেয়ে

মোস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত ‘দুই নয়নের আলো’ ছবির জনপ্রিয় গান। গানটিতে নায়িকা শাবনূর ছবির গল্পের আদলে উপস্থিত। ছবিতে তার চরিত্রটি যেভাবে এসেছে গানটিও ঠিক সেভাবেই লেখা হয়েছে। গানটির ‘মুখ’ অংশে বলা হয়েছে –

‘তুমি খুব সাধারণ একটি মেয়ে

তোমাকে বেসেছি ভালো,

চিন্তায় চেতনায় তুমি যে আমার

দুই নয়নের আলো’

ভূমিকা বলা যায় এ অংশটিকে। প্রথম অন্তরায় সাদামাটা অলঙ্কারবিহীন শাবনূরকে নিয়ে বলা হয়েছে ‘অতি সাধারণ এ রূপ তোমার /আমার এ মন রাঙাল’। নায়কের প্রেমিক মন সাদামাটা গড়নের মেয়েটিকেই ভালোবেসেছে। এভাবে শাবনূরের সাধারণের মধ্যে অসাধারণত্ব গানটিতে উঠে এসেছে। গানের কথা, সুর, শিল্পী মনির খানের দরদী গায়কী এবং শাবনূর, রিয়াজ ও ফেরদৌসের অভিনয় একটা ফুল প্যাকেজ রোমান্টিক গানে পরিণত করেছে।

দুধে আলতা বদন তোমার

এফ আই মানিক পরিচালিত ‘ফুল নেবো না অশ্রু নেবো’ ছবির অসাধারণ একটি রোমান্টিক গান। শাবনূরের রূপসৌন্দর্যের বর্ণনায় যত গান আছে এ গানটি তার মধ্যে অন্যতম সেরা এবং প্রথমদিকে অনায়াসে থাকবে। গানে শাবনূরকে তুলে ধরার ক্ষেত্রেও শৈল্পিক ছোঁয়া আছে। ‘মুখ’ অংশটি –

‘দুধে আলতা বদন তোমার

চন্দনের সুবাস ভরা,

দুটি দীঘল কাজল আঁখি

যেন মেঘের কাজল পরা

তোমার নরম দুটি ঠোঁটে

ফোটে লাল পদ্ম ফুল

যেন রেশমী সুতোর গোছা

তোমার মাথার ঐ না চুল’।

লক্ষণীয় হচ্ছে নায়িকার রূপের বর্ণনায় উপমার প্রয়োগ ঘটেছে গানে যা লিরিককে কাব্যিক করে তুলেছে। প্রথম অন্তরায় আছে –

‘তোমার হাসি দেখে ফুলের

খুব ঈর্ষা হবে মনে,

লজ্জাতে পড়বে ঝরে

যেও নাকো ফুলবনে’

এ লাইনগুলো প্রেমিক শাকিব খান গানে গানে শাবনূরকে বলতে থাকে। পুরো গানটিই শাকিবের লিপে তাই ভালোবাসাটা প্রেমিকের মনেরই। নায়িকার রূপসৌন্দর্যের মাধ্যমে প্রেমের যে চিরন্তন অনুভূতি সেটাই ফুটিয়ে তোলা হয়েছে গানটিতে। গানের কথার সাথে মিল রেখে শাবনূরের মেকাপ করা হয়েছে গানে তার সৌন্দর্যকে তুলে ধরার জন্য। সর্বোপরি এন্ড্রু কিশোরের অনবদ্য গায়কীও ভূমিকা রেখেছে।

তোমার ঐ মুখের হাসি

হাছিবুল ইসলাম মিজান পরিচালিত ‘আমার স্বপ্ন তুমি’ ছবির গান। এ গানটিও শাকিব খানের লিপে। নায়িকার গানের মধ্যে এ গানটির সৌন্দর্যও অসাধারণ। কল্পনায় শাকিব শাবনূরকে নিয়ে গানটি গায়। ‘মুখ’ অংশে আছে –

‘তোমার ঐ মুখের হাসি

আমি খুব ভালোবাসি

তুমি হাসলে পরে আসে বসন্ত,

জুঁই চামেলী গোলাপ বকুল শেফালী

ফুল ফোটে রাশি রাশি’

এখানেও যথারীতি প্রেমিকের মনের ভালোবাসার স্বতঃস্ফূর্ত প্রকাশ ঘটেছে। প্রেমে পড়লে প্রেমিকের কাছে নিজের ভালোবাসার মানুষই সেরা সুন্দরী হয়ে যায় ঠিক সেটাই এ গানে আছে। প্রথম অন্তরার এ কথাগুলো অসাধারণ –

‘আলতা রাঙা দুটো ভেজা ভেজা ঠোঁট

ও চোখে কী যে মায়া!

কোকিলার মতো সুরে সুরে কথা কয়

চাঁদেতে মেঘের ছায়া

সবুজ ঘাসে পড়লে চরণ

শিশিরবিন্দু হয় উদাসী’

অসাধারণ লিরিকে সৌন্দর্য বর্ণনা হয়েছে। গানের দ্বিতীয় অন্তরার শেষ লাইনটি ‘করেছো তুমি মনটি হরণ/তোমার নামটি প্রেমপিয়াসী’ আরো অনবদ্য।

গানটিতে শাবনূরের ন্যাচারালিটি তুলে ধরা হয়েছে এবং শাকিব খানেরও ন্যাচারাল অভিনয়ের সাথে লিপসিং গানটিকে দারুণ মাত্রা দিয়েছে।

চোখে যার কাজল নেই

শিল্পী চক্রবর্তী পরিচালিত ‘সবার অজান্তে’ ছবির জনপ্রিয় গান। এ গানটি ছিল শাকিল খানের লিপে। তখন শাকিল খান-শাবনূর জুটি জনপ্রিয় ছিল। গানটির মধ্যে গল্প আছে। গল্পটা হলো শাকিলের বিয়ের জন্য ঘটক পাত্রীর ছবি নিয়ে আসে কিন্তু শাকিলের পছন্দ হয় না। তখন শাকিলকে বলা হয় তার কেমন মেয়ে পছন্দ এবং শাকিল গানে গানে জানায়। গানটিই ছিল ছবিতে শাবনূরের ইন্ট্রো। তার রূপসৌন্দর্যের বর্ণনা এবং গ্রামের সবুজ প্রকৃতির সাথে একাকার হওয়া আবহমান একটি বাঙালি মেয়ের সৌন্দর্য মিলেমিশে একাকার এ গানে। ‘মুখ’ অংশেই নায়িকা শাবনূরের সৌন্দর্য এসেছে এভাবে –

‘চোখে যার কাজল নেই এমনি কালো

এক পলক দেখলে যারে লাগে ভালো,

এমন একটি মেয়ে যদি এনে দাও কেউ

আমি করব তারে বউ

আমি করব তারে বউ’

কী চমৎকার ভূমিকা একটা অচেনা অদেখা মেয়ে নায়ক যার প্রতীক্ষায় আছে। প্রথম অন্তরার কথাগুলো –

‘কথা যদি বলে সে ঝরে হাসির বৃষ্টি

প্রাণটাকে ঘায়েল করে হরিণ হরিণ দৃষ্টি,

লাল লাল গালে যার ছোট্ট তিল

তার সাথে হবে যে আমারই মিল’

‘তিলে’-র সাথে মিলের যে অন্ত্যমিল দেয়া হয়েছে এটা ছিল অসাধারণ। গানে গানে শাবনূরের গালেও তিল দেখানো হয়। দ্বিতীয় অন্তরায় উপমার ব্যবহার আরো অসাধারণ –

‘এলোমেলো চুলে যার খেলে দখিন হাওয়া

কামরাঙা ঠোঁট দুটি শিশিরেতে ধোওয়া’

‘কামরাঙা ঠোঁট’-এর উপমা সম্ভবত খুবই বিরল উপমা যেটা ব্যতিক্রমী উদাহরণ এ গানে।

গান শেষ হবার পরেই মূলত শাবনূরকে এক ঝলক দেখতে পায় শাকিল তার সামনে।

নদীর পানিরে

মতিন রহমান পরিচালিত ‘বিয়ের ফুল’ ছবির অনবদ্য একটি গান। এ গানে নায়িকাকেন্দ্রিক আবহ এতটা অনবদ্য যে চোখ ফেরানো মুশকিল। রিয়াজ-শাবনূর জুটির সেরা গান শৈল্পিক দৃষ্টিকোণ থেকে এটাই। গানের কথা, সুর, গায়কীর সাথে নায়িকা শাবনূরকে শৈল্পিকভাবে তুলে ধরা হয়েছে। রিয়াজের লুকও খুব ভালো ছিল। ‘মুখ’ অংশ –

‘নদীর পানিরে দে কইয়া দে

ঐ রূপসী কন্যা আমার মন কাইরাছে’

প্রেমিক রিয়াজের প্রেমের প্রকাশ আর কল্পনায় প্রিয়তমাকে কাছে পাওয়ার আকুলতা গানটিতে আছে। প্রথম অন্তরা –

‘ঢলো ঢলো অঙ্গ তার পাগল করা হাসি

একবার দেইখে মনে যে লয় তারে ভালোবাসি

চঞ্চল ঐ নয়ন বাণে আমায় মাইরাছে’

আঞ্চলিক ভাষার প্রয়োগে বাঙালি মেয়ের সৌন্দর্যে শাবনূরকে দেখানো হয়েছে।

 মধ্য অন্তরার এ কথাগুলো সেরা –

‘লজ্জাবতী কয় না কথা চুপ করিয়া রয়

কোনো কথা না কইয়াও য্যান অনেক কথা কয়

সে অনেক কথা কয়’

গানে শাবনূরের কিছু ক্লোজ শট আছে যেগুলোতে তার পরিচিত কিছু ভঙ্গি অন্যমাত্রা যোগ করেছে। সব মিলিয়ে নায়িকার গানে এটি লাজবাব।

তোমার চোখটা টানা টানা

 আবিদ হাসান বাদল পরিচালিত ‘পাগলীর প্রেম’ ছবির গান। বাপ্পারাজের লিপে এ গানটি ছিল শাবনূরকে নিয়ে। গানটিতে সেভাবে উল্লেখ করার মতো উপমা না থাকলেও শাবনূরকে কেন্দ্র করে লিরিক ছিল। শুরুটা এমন –

‘তোমার চোখটা টানা

ও তোমার মুখটা হাসি হাসি

বড় ভাগ্যবান হবে সে

যাকে বলবে ভালোবাসি’

গানটিতে শাবনূরের অনেকগুলো কাট আউট বোর্ড ব্যবহৃত হয়েছে যেটা বিশেষত্ব ছিল।

যার হাসিতে ফোটে রে ফুল

মোহাম্মদ হান্নান ‘ভালোবাসি তোমাকে’ ছবির গান। এ গানের মুখ অংশে শাবনূরের ইন্ট্রো দেওয়া হয়েছে। পরের দুই অন্তরায় নায়িকার বর্ণনা না থাকলেও পুরো গানে শাবনূরের অনেকগুলো শট নেওয়া হয়েছে এবং তাকে গ্ল্যামারাস লেগেছে। শুরুটা ছিল –

‘যার হাসিতে ফোটে রে ফুল

কাঁদলে বৃষ্টি ঝরে রে,

যার কথা শুনলে মনে হয়

কোকিলা সুর ঝরে রে’।

চোখেরই দৃষ্টিকে মাফ করো এবং চাঁদ মেঘে লুকালো

মতিন রহমান পরিচালিত ‘এই মন চায় যে’ ছবির অসাধারণ রোমান্টিক দুটি গান। এ গান দুটিতে রূপের বর্ণনা খুব বড় আকারে না থাকলেও শাবনূর বা নায়িকাকেন্দ্রিক সৌন্দর্য বর্ণনা আছে। প্রথম গানটি রিয়াজের লিপে থাকলেও পরের গানটি রিয়াজ ও শাবনূর দুজনের লিপেই ছিল।

ও প্রিয়া ও প্রিয়া প্রিয়ারে

গাজী মাহবুব পরিচালিত ‘প্রেমের তাজমহল’ ছবির দারুণ গান। এ গানটিতে রূপসৌন্দর্যের বর্ণনা প্রধানভাবে না এলেও শাবনূর বা নায়িকাকেন্দ্রিক বক্তব্য উঠে এসেছে। ‘মুখ অংশটি এমন –

‘ও প্রিয়া ও প্রিয়া প্রিয়ারে ও প্রিয়া

পৃথিবীতে আমি ছাড়া তুমি কারো না

এ আমার বিশ্বাস নয় ধারণা’

রিয়াজের লিপে গানটি ছিল শাবনূরের প্রতি প্রেম নিবেদন। প্রথম অন্তরায় আছে –

‘আয়নাতে ঐ মুখ দেখো না তুমি

তোমারই নজর লেগে যাবে,

তোমারই সাথে প্রেম হলে গো তোমায়

পাবো না তোমায় কোনো ভাবে’

এ কথাগুলোতে গভীর প্রেম ও হারানোর ভয় ফুটে উঠেছে যা অনবদ্য। গানটিতে কোরিওগ্রাফি দারুণ, এন্ড্রু কিশোরের গায়কীও দুর্দান্ত ছিল।

তোমার ঐ নীল নীল চোখ

এফ আই মানিক পরিচালিত ‘স্বপ্নের বাসর’ ছবির গান। শাকিব খানের লিপে এ গানেও শাবনূরের রূপের বর্ণনার পাশাপাশি শাকিবের প্রেম নিবেদন ফুটে উঠেছে। শাবনূরের ছবি দেখতে দেখতে শাকিব গায় আর শাবনূরের গ্ল্যামার চলতে থাকে। ভালো রোমান্টিক গান।

এর পরেও আরো গান আছে শাবনূরের যেগুলোতে কিছু পরিমাণে নায়িকাকেন্দ্রিক আবহ আছে সেসব অন্যদিন বলা যাবে। আজ এ পর্যন্তই।


লেখক সম্পর্কে বিস্তারিত

বাংলাদেশের চলচ্চিত্র গত শতকে যেভাবে সমৃদ্ধ ছিল সেই সমৃদ্ধির দিকে আবারও যেতে প্রতিদিনই স্বপ্ন দেখি। সেকালের সিনেমা থেকে গ্রহণ বর্জন করে আগামী দিনের চলচ্চিত্রের প্ল্যাটফর্ম গড়ে উঠুক। আমি প্রথমত একজন চলচ্চিত্র দর্শক তারপর সমালোচক হিশেবে প্রতিষ্ঠিত হবার স্বপ্ন দেখি। দেশের সিনেমার সোনালি দিনের উৎকর্ষ জানাতে গবেষণামূলক কাজ করে আগামী প্রজন্মকে দেশের সিনেমাপ্রেমী করার সাধনা করে যেতে চাই।

মন্তব্য করুন

Shares