Select Page

বেপরোয়া’র শুটিং স্থগিত!

বেপরোয়া’র শুটিং স্থগিত!

বেপরোয়া ছবির শুটিং আপাতত স্থগিত করা হয়েছে। স্পেশাল ব্রাঞ্চ বা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমতি না নিয়েই ছবিটির মারপিট থেকে শুরু করে অনেক শিল্পী ও কলকাতার ১০ জন কলাকুশলী কাজ করার জন্য ঢাকায় আসেন। খবর জাগো নিউজ।

বৃহস্পতিবার এফডিসির সাত নম্বর ফ্লোরে শুরু হয় ছবিটির শুটিং। শুটিং শুরুর কিছুক্ষণ পরই ওয়ার্কপারমিট তদারকি করতে আসে পুলিশ। এর মধ্যে থেমে থেমে চলতে থাকে ছবিটির শুটিং। অবশেষে স্পেশাল ব্রাঞ্চ বা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমতি না নেয়ায় ফিরে যেতে হল বেপরোয়ার ভারতীয় টিমকে।

তবে জাজের একটি সূত্রের বরাতে  দুপুর ১২টার ফ্লাইটে ভারতীয় ওই কলাকুশলীদের ফিরে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। শিগগিরই ছবির শুটিংয়ের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।

ছবিটি এককভাবে প্রযোজনা করছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। একই নামের আরও একটি ছবি নিবন্ধন রয়েছে বলে জানা গেছে। চলচ্চিত্র পরিবার কর্তৃক নিষিদ্ধ থাকায় জাজ মাল্টিমিডিয়া পরিচালক সমিতির অনুমতির তোয়াক্কা না করে একই নামের ছবির শুটিং শুরু করে কলকাতার পরিচালক রাজা চন্দ ও টেকনিশিয়ানদের নিয়ে।

শুক্রবারও দুপুর সাড়ে ১২টা নাগাদ পুলিশ আসে সঠিকভাবে ওয়ার্ক পারমিট নিয়ে কাজ চলছে কিনা সেটি যাচাইয়ের জন্য। পুলিশ আসার পর শুটিং ইউনিটের সদস্যরা অনেকটা ভড়কে যান। যদিও পরে আলোচনার প্রেক্ষিতে পরিস্থিতি শান্ত হয়। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না। তল্পিতল্পা গুটিয়ে ফেরত যেতে হলো তাদের।

ইন্ডিয়ান হাইকমিশনার সূত্রে জানা গেছে, ছবিটির ১০ কলাকুশলী ভ্রমণ ভিসায় বাংলাদেশে এসেছেন। এ কারণে এফডিসিতে (এসবির স্পেশাল ব্র্যাঞ্চ) সদস্যরা এসে ছবিটির শুটিং বন্ধ করে দেন এবং বিদেশি সবাইকে দেশত্যাগ করতে বলেন। তাই ছবির কাজ রেখেই দেশে ফিরতে হলো ভারতীয় ওই কলাকুশলীদের।

অারো পড়ুন:   ‘বসগিরি’র গল্প ও নামকরণে আজিজের ভূমিকা

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

Shares