Select Page

শেখ সাদী খানের কালজয়ী কয়েকটি গান

শেখ সাদী খানের কালজয়ী কয়েকটি গান

শেখ সাদী খান। উপমহাদেশের বিখ্যাত সুর সাধক পরিবারের ওনার জন্ম। ওস্তাদ আয়েত আলী খাঁ উনার বাবা, চাচা আরেক বিখ্যাত মানুষ আলাউদ্দিন খাঁ, বড় ভাই ওস্তাদ বাহাদুর খাঁ। তাদেরই উত্তরসূরি হয়ে বাংলাদেশের সংগীত জগতের সুরস্রষ্টা হিসেবে ধ্রুবতারা হিসেবে আলোকিত হয়ে আছেন। উনার গান মানেই যেন ধ্রুপদির ছোঁয়া, সব সময় চেয়েছেন মান ধরে রাখতে। চাহিদা থাকা সত্ত্বেও নকল সুরে আপস করেননি। অন্যতম শ্রেষ্ঠ সংগীত পরিচালকের সুর করা অনেক গানই প্রিয়। বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে পেয়েছেন একুশে পদক,দুইবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ বহু পুরস্কার। তার কালজয়ী কয়েকটি গান—

আমার এই দুটি চোখ পাথর তো নয়

রেডিওর  জন্য কবি জাহিদুল হকের কথায় সুবীর নন্দীকে দিয়ে এই গান রেকর্ড করেন শেখ সাদী খান। প্রচারের পর সমাদৃত হলে মহানায়ক সিনেমায় ব্যবহার করা হয়,ফলে আরও জনপ্রিয়তা পায়। কালের প্রবাহে গানটি কালজয়ী খেতাব পেয়েছে,সুবীর নন্দী পান প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। সুবীর নন্দীর সঙ্গে উনার রসায়ন ছিল অপূর্ব জুটি।

কাল সারা রাত ছিল স্বপনের রাত

গীতিকার নজরুল ইসলাম বাবুর সঙ্গে উনার ছিল মানিক জোড়, একটা সিনেমার জন্য একাধিক গান রেকর্ড করেছিলেন। ছবিটা আর হয়নি, নজরুল ইসলাম বাবুও মারা যান। পরে ‘প্রেমের প্রতিদান’ সিনেমায় এই গান ব্যবহার করা হয়,আশা ভোঁসলের কণ্ঠে এই গান সমাদৃত হলেও মূলত তুমুল জনপ্রিয়তা পায় বেবী নাজনীনের কণ্ঠে, অনুমতি সাপেক্ষে ‘বান্ধিলে মন’ অ্যালবামে এই গান রাখেন বেবী নাজনীন, টিভি থেকে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বেবী নাজনীন মানেই যেন এই গান, গেয়েছেনও দারুণ। দারুণ কথা, গায়কির পাশাপাশি এই অনেক খানি কৃতিত্ব সুরকারের, যিনি শেখ সাদী খান।

ডাকে পাখি খোলো আঁখি

এই গানের দৃশ্যায়ন হয় শহীদ আজাদের বাড়ি। কলকাতার নামজাদা শিল্পীদেরও তিনি নিজের সুরে গান করান,তাদের মধ্যে অন্যতম হৈমন্তী শুক্লা। সুপ্রভাতের গানের জন্য এই গানের গ্রহণযোগ্যতা অনেক, নজরুল ইসলাম বাবুর কথায় ‘প্রতিরোধ’ সিনেমার এই গান বেশ জনপ্রিয়। শেখ সাদী খানকে এই গান অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যায়।

তুমি রোজ বিকেলে আমার বাগানে ফুল নিতে আসতে

নায়ক জাফর ইকবালের জীবনের একটা অংশের গল্প বলে শোনা যায়, তবে কতটুকু সত্য জানি না। তিনি যখন তরুণ তখন একটি মেয়ে প্রতিদিন তাদের বাগানে তাকে দেখার জন্য ফুল নিতে আসতো,কিন্তু কখনো কথা হয়নি। এই গল্পকে অনুপ্রাণিত করেই গীতিকার মাহফুজুর রহমান মাহফুজ এই গান লিখেন, সুর দেন শেখ সাদী খান। কুমার বিশ্বজিতের বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে এটি অন্যতম উল্লেখযোগ্য গান।  

আমার মনের আকাশে আজ জ্বলে শুকতারা

‘প্রেমের প্রতিদান’ সিনেমার গান, তত দিনে মুক্তি পেয়ে গেছে বলিউডের সাড়া জাগানো ‘আশিকি’ ছবি। এই ছবির একটি গানের সঙ্গে সাদৃশ্য পাওয়া যায়। স্বাভাবিকভাবেই ধরে নেয়া হয় আমাদেরটা নকল, কাকতালীয়ভাবে দুটির গায়ক কুমার শানু। তবে নব্বইয়ের মাঝখানে যখন কুমার শানু এই দেশে আসেন তখন এই ভুল ভাঙেন তিনি, ‘প্রেমের প্রতিদানের’ গানই আগে রেকর্ড করা হয় বেশ আগে, তখনো তিনি কুমার শানু হয়ে ওঠেননি, পরে ‘আশিকি’ ছবিতে গানের সময় এই সুরের কথা বললে নাদিম- শ্রাবনের পছন্দ হয়ে যায়। আমাদের গানটিও খুব জনপ্রিয় হয়েছিল,এখনো বেশ সমাদৃত।

অসংখ্য গান থেকে আরও কিছু: জীবন মানে যন্ত্রণা, পৃথিবীতে প্রেম বলে কিছু নেই, তোমার চন্দনা মরে গেছে, কেন ভালোবাসা হারিয়ে যায়, ভালোবাসলেই ঘর বাঁধা যায় না, ওগো বিদেশিনী তোমার চেরি ফুল দাও, শোনো সোমা একটু দাঁড়াও এবং তোমারেনি চিনি বন্ধু তোমারে নি চিনি।


লেখক সম্পর্কে বিস্তারিত

চলচ্চিত্র ও নাটক বিষয়ক লেখক

মন্তব্য করুন

Shares