Select Page

সুরের জাদুকর আনোয়ার পারভেজের সেরা ২৫ (ভিডিও)

সুরের জাদুকর আনোয়ার পারভেজের সেরা ২৫ (ভিডিও)

আনোয়ার পারভেজ, আমাদের বাংলা গানের একজন স্বনামধন্য সংগীত পরিচালক, যার সংগীত জাদুতে মুগ্ধ হয়নি এমনজন হয়তো খুঁজে পাওয়া যাবে না। তার প্রতিটি গানের সুর যেন মনের গভীরে তৈরি করতো এক ভালো লাগার আমেজ। বিশেষ করে তার সৃষ্টি মেলোডি সব সুরগুলো এখনো সবার মনের দরজায় টোকা দিয়ে যায়, মনকে হারিয়ে নিয়ে যায় কোন সে অজানায়।

গীতিময় সেই দিন চিরদিন, চঞ্চল হাওয়া রে, এই মন তোমাকে দিলাম, রিমঝিম বরষাতে, ইশারায় শিষ দিয়ে, চিরদিন পাশে থেকো বন্ধু— গানগুলো যার জ্বলন্ত উদাহরণ।

আনোয়ার পারভেজের জন্ম ১৯৪২ সালে ঢাকায়, চট্টগ্রাম বেতারে তার প্রথম কর্মজীবন শুরু। প্রখ্যাত সংগীত পরিচালক করিম শাহাবুদ্দীনের সহকারী হিসেবে প্রথম চলচ্চিত্রের গানে সংগীত পরিচালনা শুরু করেন তিনি। যার মধ্যে ‘চাঁদ আউর চাঁদনী’, ‘বাবুল’ (পরবর্তীতে ‘বিজলী’) অন্যতম, প্রথম পূর্ণাঙ্গ সংগীত পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ ১৯৭০ সালে ‘বিন্দু থেকে বৃত্ত’ ছবিটি দিয়ে। এরপর একে একে ‘কত যে মিনতি’, ‘জয় বাংলা’, ‘রংবাজ’, ‘গান গেয়ে পরিচয়’, ‘দি রেইন’, ‘ছন্দ হারিয়ে গেলো’, ‘জোকার’, ‘বন্দিনী’, ‘কার পাপে’, ‘লাল মেম সাহেব’, ‘ডার্লিং’, ‘ঘরের বউ’, ‘বদনাম’, ‘মানসী’সহ প্রায় দেড় শতাধিকের ওপর চলচ্চিত্রে একজন সফল সংগীত পরিচালক হিসেবে কাজ করেন, উপহার দেন শ্রুতিমধুর সব সুর।

৪০ বছর সংগীত জীবনে করেন প্রায় দুই হাজারের মতো গানের সুর করেন। বিবিসির নির্বাচনে সর্বকালের সেরা যে বিশটি বাংলা গান স্বীকৃতি পেয়েছে তার মধ্যে আনোয়ার পারভেজের সুরকৃত তিনটি গান স্থান করে নিয়েছে। গানগুলো যথাক্রমে— জয় বাংলা বাংলার জয়, একবার যেতে দে না আমায় ছোট্ট সোনার গাঁয় এবং একতারা তুই দেশের কথা বলরে এবার বল।

আমাদের বাংলা চলচ্চিত্রের গানকে সমৃদ্ধ করতে যাদের অবদান কখনই অস্বীকার করা যাবে না তাদের একজন আনোয়ার পারভেজ। অথচ এই রকম একজন সংগীতজ্ঞ মানুষকে একবারের জন্যও জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সম্মানিত করা হয়নি, যা খুবই দুঃখজনক, অথচ ওনার সুরারোপিত ‘চঞ্চল হাওয়া রে’ (দি রেইন), ‘এই মন তোমাকে দিলাম’ (মানসী), ‘আমি ধন্য হয়েছি ওগো ধন্য’ (সোনা বৌ), ‘পাথরের পৃথিবীতে কাঁচের হৃদয়’ (ঢাকা৮৬), ‘বাপের চোখের মণি নয়’ (জোকার), ‘ইশারায় শিস দিয়ে’ (বন্দিনী)-সহ আরো অনেক গান ছিল যেগুলোকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সম্মানিত করা যেতো।

‘দি রেইন’ ছবিতে তার সুরারোপিত ‘চঞ্চল হাওয়া রে’ (রুনা লায়লা) ও ‘আমি তো আজ ভুলে গেছি সবই’ (মাহমুদুন্নবী) গান দুটির জন্য দুজনই প্রথম গায়ক গায়িকা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। জীবদ্দশায় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার না পেলেও বাংলা সংগীতে অসামান্য অবদানের জন্য ২০০৭ সালে তাকে মরণোত্তর একুশে পদকে ভূষিত করা হয়। ব্যক্তি জীবনে আনোয়ার পারভেজ নায়ক জাফর ইকবাল ও কণ্ঠশিল্পী শাহনাজ রহমতউল্লাহর ভাই ছিলেন। ২০০৬ সালের ১৭ আগস্ট তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

আনোয়ার পারভেজের সেরা পঁচিশটি গানের তালিকা—

গীতিময় সেই দিন চিরদিন
চলচ্চিত্র: ছন্দ হারিয়ে গেলো
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: সাবিনা ইয়াসমিন

তুমি সাত সাগরের ওপার হতে
চলচ্চিত্র: কত যে মিনতি
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: আবদুল জব্বার ও শাহনাজ রহমতউল্লাহ

বাপের চোখের মনি নয়
চলচ্চিত্র: জোকার
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: মোহাম্মদ খুরশিদ আলম

আমার গানের মালা
চলচ্চিত্র: বদনাম
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: সৈয়দ আবদুল হাৃদী

গান নয় জীবন কাহিনী
চলচ্চিত্র: বন্দিনী
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: রুনা লায়লা

মাটির কোলে খাঁটি মানুষ
চলচ্চিত্র: মাটির কোলে
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: ইন্দ্রমহন রাজবংশী

আমি ধন্য হয়েছি ওগো ধন্য
চলচ্চিত্র: সোনা বৌ
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: সাবিনা ইয়াসমিন

তুই যে আমার মিলন মালারে প্রান সজনী
চলচ্চিত্র: নিষ্পাপ
কথা: খোশনূর আলমগীর
কণ্ঠ: সাবিনা ইয়াসমিন

পেয়েছি আমি যারে
চলচ্চিত্র: সোহাগ মিলন
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: রুনা লায়লা

সাগরের সৈকতে কে যেন দুর হতে
চলচ্চিত্র: ছূটির ফাঁদে
কথা: শহীদুল হক খান
কণ্ঠ: শাহনাজ রহমতউল্লাহ

হাত ধরে নিয়ে চলো পথ চিনি না
চলচ্চিত্র: অভিযান
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়া
কণ্ঠ: সাবিনা ইয়াসমিন ও ত্র্যান্ড্রু কিশোর

শ্যামলা মেয়ের ডাগর চোখে
চলচ্চিত্র: গান গেয়ে পরিচয়
কথা: শাহেদ আলী মজনু
কণ্ঠ: মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী

চঞ্চল হাওয়া রে
চলচ্চিত্র: দি রেইন
কণ্ঠ: রুনা লায়লা

সে যে কেন এলোনা কিছু ভালো লাগে না
চলচ্চিত্র: রংবাজ
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: সাবিনা ইয়াসমিন

ও আমার জান তোর বাঁশি যেন যাদু জানেরে
চলচ্চিত্র: চাঁদনী
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: সাবিনা ইয়াসমিন

চোখ জুড়ানো মনের মতো ভাবী এনে দাও
চলচ্চিত্র: সবুজ সাথী
কথা: এম এ মালেক
কণ্ঠ: সাবিনা ইয়াসমিন খুরশীদ আলম

ধন নয় মান নয়
চলচ্চিত্র: ভাগ্যলিপি
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: সাবিনা ইয়াসমিন ও ত্র্যান্ড্রু কিশোর

বন্ধুর বাঁশী বাজেরে আমার কানে কানে
চলচ্চিত্র: চাঁদনী
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: রুনা লায়লা

চিরদিন পাশে থেকো বন্ধু কখনও বলোনা গুডবাই
চলচ্চিত্র: লাল মেম সাহেব
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: সাবিনা ইয়াসমিন

ইশারায় শিষ দিয়ে আমাকে ডেকোনা
চলচ্চিত্র: বন্দিনী
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: সাবিনা ইয়াসমিন

মাধবী রাতের নীল জ্যোছনায় আমি চেয়েছি শোনাতে এই গান
চলচ্চিত্র: ঘরের বউ
কথা: এম এ মালেক
কণ্ঠ: সাবিনা ইয়াসমীন

দুটি চোখ কাজলে সাজে না
চলচ্চিত্র: কার পাপে
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: সাবিনা ইয়াসমিন ও আলমগীর(চিত্র নায়ক)

কথা কেন যে বলিস না মনের মতো তো চলিস না
চলচ্চিত্র: বেদ্বীন
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: রুনা লায়লা

পাথরের পৃথিবীতে কাঁচের হৃদয়
চলচ্চিত্র: ঢাকা ৮৬
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: তপন চৌধুরী শাকিলা জাফর

এই মন তোমাকে দিলাম
চলচ্চিত্র: মানসী
কথা: গাজী মাজহারুল আনোয়ার
কণ্ঠ: সাবিনা ইয়াসমিন

বি. দ্র. সেরা এক-দুই হিসেবে নয়, তালিকার প্রতিটি গানই সেরা থেকে সেরা, তাই কোন সংখ্যা ছাড়াই তালিকাটি করা হলো!


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Shares